বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
বিনোদনডেস্ক

ভারতের হিন্দি টেলি সিরিয়ালের ‘শিশু’ শিল্পী হিসেবে তারা পরিচিত। তবে শিশু বলে তাদের গণ্য করা হলেও, তারা আয়-উপার্জনে শিশু নয়। একেবারে পাক্কা অভিনেত্রী। বড়দের চেয়ে তাদের আয় ও জনপ্রিয়তা কোনো অংশেই কম নয়। তাদের প্রতি দিনের উপার্জন জানলে আপনার চোখ কপালে উঠতে বাধ্য।

আনন্দবাজার পত্রিকার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ওরা নিতান্তই ছোট। বেশিরভাগই বয়স এখনও ১৮ পেরোয়নি। তা সত্ত্বেও এই বয়সেই অভিনয় করে কোটিপতি তারা! ব্যক্তিগত গাড়িতে চেপে ঘুরে বেড়ায়। আছে বাড়ি, সম্পত্তি ও নানা সম্পদ। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই শিশু শিল্পীদের কয়েকজন সম্পর্কে-

আসনুর কৌর: এক সঙ্গে জোড়া খুশির খবর এসেছিল আসনুরের বাড়িতে। সিরিয়ালে অভিনয় করে পরিচিত মুখ হয়ে উঠেছিল আসনুর। আর এর মধ্যেই মাধ্যমিক স্তরের পরীক্ষায় ফলপ্রকাশ। তাতেও ৯৩ শতাংশ নম্বর পায় সে। হ্যাঁ, এত কম বয়সেই জনপ্রিয় হয়ে ওঠে আসনুর। আসনুর এখন মাত্র ১৫ বছরের।

‘ঝাঁসি কি রানি’ ছবিতে প্রাচীর চরিত্রে অভিনয় দিয়ে শুরু হয়েছিল তার কেরিয়ার। তারপর ‘না বোলে তুম না ম্যায়নে কুছ কহা’, ‘বড়ে অচ্ছে লাগতে হ্যায়’, ‘সিআইডি’, ‘পাতিয়ালা বেবস’ এমনকি অনুরাগ কাশ্যপের ‘মনমরজিয়াঁ’ ছবিতে তাপসী পান্নুর বোন হয়েছিল। আসনুর টেলিভিশনে প্রতিটা পর্বের জন্য ৪০ থেকে ৪৫ হাজার উপার্জন করে এখনই।

অবনীত কৌর: ‘ডান্স ইন্ডিয়া ডান্স’ দিয়ে কেরিয়ার শুরু হয়েছিল অবনীতের। এরপর ২০১২ সালে ‘মেরি মা’ ধারাবাহিকে অভিনয়ে ডেবিউ করে। ১৭ বছরের অবনীত সোশ্যাল মিডিয়ায় জনপ্রিয় মুখ। আর এই ১৭ বছর থেকেই তার মাসে উপার্জন কত জানেন? পর্ব পিছু ৩০ হাজার টাকা পারিশ্রমিক নেয় সে। কোনও ধারাবাহিকের মাসে ৩০টা পর্ব হিসাব করলে তার আয় কত দাঁড়ায় বুঝতে পারছেন?

অনুষ্কা সেন: ছোট থেকে শ্রীদেবীকে অনুসরণ করে বড় হয়েছে অনুষ্কা। ভারতীয় টিনেজ টেলিভিশন অভিনেতাদের মধ্যে এখন অন্যতম জনপ্রিয় মুখ এই অনুষ্কা। একাধিক টেলি সিরিয়াল তো আছেই। তার বাইরে বিভিন্ন ব্র্যান্ডের হয়ে কাজ করে, মডেলিং করে সে। টেলি সিরিয়ালের প্রতি পর্বের জন্য অনুষ্কা ৫০ হাজার টাকা নেয়। এর বাইরে বিজ্ঞাপন, মডেলিং থেকেও প্রচুর আয় করে সে।

ঝাড়খণ্ডে জন্ম অনুষ্কা ১৭ বছর বয়সেই নিজের উপার্জনে একটি বিলাসবহুল বাড়ি আর গাড়ি কিনে ফেলেছে। তার একটা সাদা হুন্ডাই ভারনা আছে। তার সম্পত্তির পরিমাণ কত জানেন? আয়কর দফতরে জমা দেওয়া হিসাব অনুযায়ী ৬ কোটি ৫০ লক্ষ টাকা। এটা অবশ্য ২০১৮ সালের তথ্য। মিলিওনিয়র অনুষ্কার সম্পত্তি যে এই এক বছরে আরও ফুলে ফেঁপে উঠেছে, তা বলাই বাহুল্য।

মাহিমা মাকওয়ানা: ‘বালিকা বধূ’র গৌরীকে মনে আছে? মাহিমাই ওই চরিত্রে অভিনয় করেছিল। মাত্র ৫ বছর বয়সে বাবাকে হারায় মাহিমা। মাহিমা এবং তার ভাই দু’জনকেই অনেক কষ্টে বড় করেছেন তাদের মা। ১৩ বছর বয়স থেকে অভিনয়ে হাতেখড়ি মাহিমার।

‘বালিকা বধূ’ ছাড়াও ‘যব হম তুম’, ‘ঝাঁসি কি রানি’, ‘সাওয়ারে সবকে স্বপনে’র মতো ধারাবাহিকে অভিনয় করেছে মাহিমা। প্রতি পর্বের জন্য মাহিমা নেয় ৩০ থেকে ৩৫ হাজার টাকা। ৯ লাখ টাকার একটি গাড়ি আছে তার।

জন্নত জুবের: ২০০৯ সাল থেকে টেলিভিশনে কাজ শুরু করে জন্নত। আর ২০১১ সালে ‘ফুলওয়া’-য় অভিনয় করে জনপ্রিয়তা পায়। জন্নতের বয়স এখন ১৬। টেলি সিরিয়ালের প্রতি পর্বের জন্য ৪০ হাজার টাকা পারিশ্রমিক নেয় জন্নত।

অদিতি ভাটিয়া: ইউটিউব, ইনস্টাগ্রামে প্রচুর ছবি, ভিডিয়ো শেয়ার করে অদিতি। ‘ইয়ে হ্যায় মহব্বত’ এ অভিনয় জনপ্রিয়তা এনে দেয় অদিতিকে। তারপর আর পিছনে তাকাতে হয়নি। একটার পর একটা সিরিয়ালে অভিনয় করে চলেছে অদিতি। তার উপর মডেলিং তো আছেই। প্রতি পর্বের জন্য অদিতি কত টাকা নেয় জানেন? ৫০ হাজার টাকা।

নিধি ভন্সালী: গুজরাতের গান্ধীনগরে জন্ম নিধির। ‘তারক মেহতাকা উল্টা চশমা’-র সনুর চরিত্রে অভিনয় করেছে ২০ বছরের নিধি। পরে অবশ্য পড়াশোনার জন্য সিরিয়াল ছেড়ে দেয়। তার জায়গায় আসে নতুন মুখ। নিধি খুব বেশি সিরিয়ালে অভিনয় করেনি। বহু বছর ধরে চলা এই সিরিয়ালে প্রথম দিকে অভিনয় করার সময় প্রতি পর্বের জন্য নিধি ১০ হাজার টাকা নিত।

Print Friendly, PDF & Email