বাঙলাদেশ
সাফ অনূর্ধ্ব ১৮ জিতল বাংলাদেশ।

বাঙালিনিউজ
খেলারডেস্ক

ভূটানের রাজধানী থিম্পুর চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামে ০৭ অক্টোবর ২০১৮ রোববার, সাফ অনূর্ধ্ব ১৮ মেয়েদের চ্যাম্পিয়নশিপে নেপালকে ১-০ গোলে হারিয়ে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ। একমাত্র গোলটি করেছেন ডিফেন্ডার মাসুরা পারভিন। লড়াইয়ের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশা পূরণ করেছেন লাল-সবুজ নারী বাহিনী।

সাফ অনূর্ধ্ব ১৮ মেয়েদের এই চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের যাত্রা শুরু হয়েছিল পাকিস্তানকে গোল বন্যায় ভাসিয়ে দিয়ে। তারপর ভারত, ভূটান ও নেপালকে দ্বিতীয় দফায় তথা চূড়ান্ত পর্বে হারিয়ে শিরোপা জয়ের মধ্য দিয়ে জয়যাত্রা শেষ করল বাংলাদেশ। ফলে টুর্নামেন্ট জুড়ে দাপটের সঙ্গে লড়ে সাফ অনূর্ধ্ব-১৮ মহিলা ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম আসরে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।

শিরোপা জয়ের এই ম্যাচে নেপালের সঙ্গে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে বাংলাদেশের মানুষের প্রত্যাশা করেছেন লাল-সবুজের নারী বাহিনী। গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচেও নেপালকে ২-১ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। তাই অনেকে আগেই ভেবেছিলেন ফাইনালে বাংলাদেশের মেয়েরাই জিতবেন। পাত্তা পাবে না নেপালি মেয়েরা।

বাঙালিনিউজ

তবে ফাইনাল ম্যাচে শিরোপার লড়াইটা বেশ কঠিনই ছিল। কারণ, প্রতিটা মুহূর্তে স্বপ্না ও কৃষ্ণাদের চাপে রেখেছিলেন হিমালয় কন্যারা। ম্যাচের উত্তেজনা ছিল এমন যে গোলের আগ পর্যন্ত সব সময় মনে হয়েছে ম্যাচটি জিততে পারে যেকোনো দলই। তাই ম্যাচের ৪৮ মিনিটে বাংলাদেশ গোল করার পরও মনে হয়েছে নেপাল যে কোনও মুহূর্তে সমতায় ফিরতে পারে। তাই ম্যাচের শেষ পর্যন্ত উত্তেজনা ছিল তুঙ্গে।

পাকিস্তানের জালে ১৭ গোল গোল দিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করেছিল গোলাম রব্বানি ছোটনের শিষ্যরা। গ্রুপ পর্বের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে নেপালকে ২-১ গোলে হারানোর পর সেমিফাইনালে ভুটানকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। তবে ম্যাচের আগেই বাংলাদেশই জিতবে বলে অনেকেই প্রত্যাশা করেছিলেন।

কিন্তু এমন হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করে শিরোপা জিততে হবে বাংলাদেশকে, তা কেউ ভাবেননি! তবে কোনও দলই গোলের বেশি সুযোগ তৈরি করতে পারেনি। উভয় দলের আক্রমণের ঝড় থেমে যায় প্রতিপক্ষের বক্সের সামনে। দুই দলের ডিফেন্ডাররাই ছিলেন ফাইনাল ম্যাচের প্রাণ। ম্যাচের ৪৮ মিনিটে একমাত্র গোল করেছেন বাংলাদেশের ডিফেন্ডার-মাসুরা পারভীন। মাঝমাঠের একটু ওপর থেকে মনিকা চাকমার নেওয়া ফ্রি কিক গোলমুখের সামনে থেকে হেডে জালে জড়িয়েছেন এই সেন্টারব্যাক। টুর্নামেন্টে এটাই ছিল তাঁর প্রথম গোল।

বাঙালিনিউজ

দুর্দান্ত প্রতাপ দেখিয়ে ফাইনালে ওঠা বাংলাদেশের মেয়েরা রোববার ফাইনালে প্রথম ১৫ মিনিট নেপালের গোল পোস্টে আঘাত হানতে পারেনি। প্রতি আক্রমণ থেকে ম্যাচের সবচেয়ে সহজ সুযোগটি হাতছাড়া করেন কৃষ্ণা রাণী সরকার। গ্রুপ পর্বে গোলরক্ষক রুপনা চাকমার হাই ভলি থেকে যেভাবে নেপাল ডিফেন্ডারদের গতিতে পেছনে ফেলে বলের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে বল জালে পাঠিয়েছিলেন, তেমন একটি সুযোগই পেয়েছিলেন বাংলাদেশ দলের এই ফরোয়ার্ড। কিন্তু পোস্ট ছেড়ে বের হয়ে আসা গোলরক্ষকের মাথার ওপর দিয়ে ভলি মেরে সুযোগটি নষ্ট করেন। তবে ৪৮ মিনিটে বাংলাদেশের মাসুরা পারভীন গোল করেন।

মাসুরার গোলের পরও স্বস্তিতে থাকতে পারেননি বাংলাদেশের দর্শকেরা। এগিয়ে যাওয়ার দুই মিনিট পরেই তো জটলার মধ্যে থেকে নেওয়া নেপাল স্ট্রাইকারের ব্যাকহিল সাইডপোস্টে লেগেছিল। এই চাংলিমিথাং স্টেডিয়ামেই গত ১৮ আগস্ট কেঁদে মাঠ ছেড়েছিলেন বাংলাদেশের মেয়েরা। অনূর্ধ্ব ১৫ সাফের ফাইনালে সেদিন ভারতের বিপক্ষে ১-০ গোলে হেরে শিরোপা হাতছাড়া হয় বাংলাদেশের। ৪৮ দিন পর, সেই চাংলিমিথাংয়েই শিরোপা অনূর্ধ্ব ১৮ দল বাংলাদেশ দলের তরুণীরা।

Print Friendly, PDF & Email