বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
বিনোদনডেস্ক

এবার যৌন হয়রানি নিয়ে মুখ খুললেন সাবেক বিশ্ব সুন্দরী, বলিউড স্বপ্নকন্যা ঐশ্বরিয়া রাই। তিনি বলেছেন, যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে এখন যে নারীরা মুখ খুলছেন তাদের অভিবাদন জানাই। তাছাড়া যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধের অভিযোগ সংবাদমাধ্যমও এখন গুরুত্ব দিয়ে শুনতে শুরু করেছে। এটা অত্যন্ত ভাল পদক্ষেপ বলেও মনে করছি।

‘এই দিল হ্যায় মুশকিল’ খ্যাত বলিউড সুপারস্টার ঐশ্বরিয়ার দাবি, নারীদের উপর হেনস্তার ঘটনা নতুন কিছু নয়। বহুকাল ধরে এসব চলে আসছে। কিন্তু এবার নারীরা যৌন হেনস্তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে শুরু করেছেন, তা দেখে ভালো লাগছে বলে জানান তিনি।

এদিকে বলিউড অভিনেত্রী ফ্লোরা সাইনিও এই যৌন হেনস্তা নিয়ে মুখ খুলেছেন। শুধু তাই নয়, তিনি এও বলেছেন যে, প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশির হাতে মার খেয়েছেন তিনি। গৌরাঙ্গের সঙ্গে সম্পর্কে থাকার সময় মনোমালিন্য হওয়ায় তার হাতে মারও খেতে হয়েছে তাঁকে। বিষয়টি জানাজানি হওয়া সত্ত্বেও রুপোলি জগতের কেউ কখনও মুখ খোলেননি। প্রতিবাদও করেননি। একমাত্র ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনকেই পাশে পেয়েছিলেন তিনি।

বলিউড অভিনেত্রী ফ্লোরা সাইনি সম্প্রতি অভিযোগ করেন, প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশির সঙ্গে ‘ডেট’ করার সময়ই তার হাতে মার খান তিনি। যার ফলে প্রযোজক বন্ধুর সঙ্গে তাঁর বিচ্ছেদও হয়ে যায়। কিন্তু, ওই সময় কেউ গৌরাঙ্গের বিরুদ্ধে মুখ খোলেননি। তাঁর উপর অত্যাচার হয়েছে, এই খবর পাওয়ার পরও মুখে কুলুপ এঁটে থাকে বলিউড। শুধু ঐশ্বরিয়া রাই-কে পাশে পেয়েছিলেন তিনি।

ফ্লোরার উপর শারীরিকভাবে যেমন নিগ্রহ করা হয়েছে, তা অনুচিত বলেই গৌরাঙ্গের প্রজেক্ট বাতিল করেন ঐশ্বরিয়া রাই। যা তাঁর কাছে অনেক বড় পাওয়া ছিল। এমনকী যে ব্যক্তি কোনও অভিনেত্রীকে শারীরিক নির্যাতন করেন, তাঁর প্রজেক্টে কাজ করা কোনওভাবেই সম্ভব নয় বলেও স্পষ্ট জানিয়েছিলেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া।

গৌরাঙ্গ দোশির প্রজেক্ট রাই বাতিল করার পরই ফ্লোরাকে হুমকির মুখোমুখি হতে হয় ফ্লোরাকে। তার কেরিয়ার নষ্ট করে দেওয়া হবে বলেও হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ করেন অভিনেত্রী।

বাঙালিনিউজ

সম্প্রতি একটি বিধ্বস্ত মুখের ছবি দিয়ে ফ্লোরা তাঁর উপর হওয়া হেনস্থা নিয়ে মুখ খোলেন। যে ছবিতে ফ্লোরার চোখের নীচে কালশিটে পরে থাকতে দেখা যায়। থুঁতনিতেও দেখা যায় আঘাতের চিহ্ন। আর ফ্লোরার এই ছবি দেখার পর থেকেই ফের শোরগোল শুরু হয়।

উল্লেখ্য, ঐশ্বরিয়া রাইও ২০০২ সালে সাবেক প্রেমিক বলিউড সুপারস্টার সালমান খানের বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগ করেছিলেন। তখন এই অভিনেত্রী দাবি করেছিলেন সালমান খান তাঁকে শারীরিক ও মানসিকভাবে তাকে হেনস্তা করেছিলেন। এরপর থেকে ঐশ্বরিয়া সালমানের সঙ্গে কাজ না করার ঘোষণা দেন। তবে ঐশ্বরিয়াকে হেনস্তার অভিযোগ প্রসঙ্গে সালমান কখনও মুখ লোনেনি। কোনও প্রশ্নেরও জবাব দিননি।

এখানে স্মরণযোগ্য যে, বলিউডে নারীদের ওপর যৌন হয়রানির অভিযোগ দীর্ঘদিনের। তবে বিষয়টি নিয়ে এতদিন কেউ মুখ খুলতে চাইতেন না। হলিউডে এ বিষয়ে অনেকে সোচ্চার হওয়ার পর বলিউডি নারীরাও বলিয়ান হয়েছেন। নীরবতা ভেঙে মুখ খুলছেন অনেকেই।

সম্প্রতি অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে অভিনেত্রী তনুশ্রী দত্তের যৌন হেনস্তার অভিযোগের পর, বলিউডে এ নিয়ে তোলপাড় শুরু হয়েছে। হলিউডের নামী-দামী প্রযোজক পরিচালক ও অভিনেতা সহ বলিউড সংশ্লিষ্ট অনেক হর্তাকর্তার বিরুদ্ধে অভিনেত্রীরা যৌন হেনস্থার অভিযোগ তুলছেন।

‘হ্যাশ ট্যাগ মি টু’ ক্যাম্পেইনের জোরে ইতোমধ্যে যৌন হয়রানির অভিযোগ উঠেছে নানা পাটেকর ছাড়াও অভিনেতা অলোক নাথ, সংগীতশিল্পী কৈলাশ খের, মডেল জুলফি সৈয়দ, কমেডিয়ান উৎসব চক্রবর্তী ও চলচ্চিত্র প্রযোজক গৌরাঙ্গ দোশি সহ আরও অনেকের নামে।

Print Friendly, PDF & Email