বাঙালিনিউজ
ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতা রেজাউল করিম রাসেল ওরফে পিলপিল রাসেলকে (৩৫) কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। ছবি: সংগৃহীত

বাঙালিনিউজ
ময়মনসিংহ প্রতিনিধি

ময়মনসিংহে রেজাউল করিম রাসেল ওরফে পিলপিল রাসেল (৩৫) নামে এক যুবলীগ নেতাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল ১৩ মে ২০১৯ সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে ময়মনসিংহ শহরের মৃত্যুঞ্জয় স্কুল এলাকা থেকে পুলিশ রেজাউলের লাশ উদ্ধার করেছে। জানা গেছে, দুর্বৃত্তরা রেজাউল করিমকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করার পর লাশ ফেলে রেখে চলে যায়।

পুলিশ জানায়, গতকাল সোমবার দিবাগত রাত সাড়ে তিনটার দিকে মৃত্যুঞ্জয় স্কুল এলাকায় রেজাউলের লাশ পড়ে ছিল। পরে পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে। তাকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে কোতোয়ালি মডেল থানার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. আল-আমিন জানান, রাসেলের পিঠে ছুরিকাঘাতের দুটি চিহ্ন পাওয়া গেছে। তবে কারা তাকে হত্যা করেছে তা জানা যায়নি। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ (মমেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নিহত রেজাউল করিম রাসেল ওরফে পিলপিল রাসেল ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। এর আগে তিনি জেলা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি ছিলেন। তিনি শহরতলির শম্ভুগঞ্জ হরিপুর এলাকার জালাল উদ্দিন ওরফে জালাল ডিলারের ছেলে।

নিহত রেজাউলের পরিবারের পক্ষ থেকে আজ মঙ্গলবার সকাল ১০টা পর্যন্ত পুলিশের কাছে কোনো লিখিত অভিযোগ করা হয়নি বলে থানা সূত্র জানায়। পুরো বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলেও জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহমুদুল ইসলাম মিডিয়াকে বলেন, রেজাউল জেলা যুবলীগের নেতা ছিলেন। বিরোধের জের ধরে তাঁকে হত্যা করা হয়ে থাকতে পারে বলে পুলিশ প্রাথমিকভাবে ধারণা করছে। পুলিশ হত্যারহস্য উদ্‌ঘাটনে কাজ করছে।

Print Friendly, PDF & Email