বাঙালিনিউজ
আন্তর্জাতিকডেস্ক

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের প্রথমটিতে ৪৭ রানের জয় তুলে নিয়ে পাকিস্তানের বিপক্ষে এগিয়ে গেল নিউজিল্যান্ড। ম্যাচ জেতার কৃতিত্ব বাঁ হাতি ফাস্ট মিডিয়াম বোলার ট্রেন্ট বোল্টের। মূলত বোল্টের হ্যাট্টিকের সুবাদে ম্যাচে পাকিস্তান ধরাশায়ী হয়। পাকিস্তানের ব্যাটিং ‘স্তম্ভ’ ফখর জামান, বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজকে সাজঘরে পাঠিয়ে তৃতীয় কিউই বোলার হিসেবে হ্যাট্টিকের কৃতিত্ব অর্জন করেন বোল্ট।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের আবুধাবির শেখ জায়েদ স্টেডিয়ামে দিবা-রাত্রির এই ম্যাচে টস জিতে প্রথমে ব্যাংটিয়ের সিদ্ধান্ত নেয় নিউজিল্যান্ড। ব্যাট হাতে কিউইরা ৯ উইকেটে ২৬৬ রান সংগ্রহ করে। পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪টি করে উইকেট নিয়েছেন শাহিন শাহ আফ্রিদি ও শাদাব খান। অপর উইকেটটি নিয়েছেন ইমাদ ওয়াসিম।

২৬৭ রানের জয়ের জন্য ব্যাটিংয়ে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি পাকিস্তানের। মাত্র ৮ রানে বোল্টের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন ফখর জামান। পরের দুই বলে বাবার আজম ও মোহাম্মদ হাফিজকে যথাক্রমে কট ও এলবিডব্লিউ’র ফাঁদে ফেলে ক্যারিয়ারে প্রথম হ্যাট্টিকের স্বাদ নেন বোল্ট। মূলত এখানেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে পাকিস্তান। একশ’ না পেরুতেই আরও তিন ব্যাটসম্যান ইমাম-উল হক, শোয়েব মালিক, শাদাব খানকে হারিয়ে পুরো চাপের মুখে পড়ে পাকিস্তান।

তবে সপ্তম উইকেটে সরফরাজ আহমেদ ও ইমাদ ওয়াসিমের জুটি (১০৩ রানের জুটি) আশা দেখাতে থাকে পাকিস্তানকে। এ পর্যায়ে গ্র্যান্ডহোম সরফরাজ আহমেদকে বোল্ড করলে ফের কিউই শিবিরে স্বস্তি ফেরে। ব্যক্তিগত ৬৪ রানে সরফরাজের বিদায়ের পর ৫০ রান করে ফেরেন ইমাদ ওয়াসিম। ২১৯ রানে তার বিদায়ের পর ১৬ রান করা হাসান আলী এবং শাহীন শাহ আফ্রিদিও ফেরেন একই স্কোর বোর্ডে। তাতে ১৬ বল বাকি থাকতেই ৪৭ রানে জয় পায় নিউজিল্যান্ড।

Print Friendly, PDF & Email