বাঙালিনিউজ
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। ফাইল ফটো

বাঙালিনিউজ
নিজস্ব প্রতিবেদক

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর চিকিৎসার জন্য থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাংককে গেছেন। আজ ১৫ মে ২০১৯ বুধবার সকাল ১১টা ২০ মিনিটে, বাংলাদেশ বিমানের-০৮৮ ফ্লাইটে ব্যাংককের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন মির্জা ফখরুল। বিএনপির মহাসচিব ফখরুলের সঙ্গে তাঁর স্ত্রী রাহাত আরা বেগমও রয়েছেন।

বিমানবন্দরে তাকে বিদায় জানান বিএনপির সহ-শ্রমবিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ আহমদ। পরিবার সূত্রে জানা গেছে, ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসা নেবেন বিএনপি মহাসচিব। এর আগেও সেখানে চিকিৎসা নিয়েছিলেন তিনি।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুলের চিকিৎসার জন্য ব্যাংক যাওয়ার খবর মিডিয়াকে নিশ্চিত করেছেন দলটির চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান। তিনি বলেছেন, ব্যাংককের বামরুনগ্রাদ হাসপাতালে চিকিৎসা নেবেন বিএনপির মহাসচিব। সেখানে একজন হৃদরোগের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের এপয়েন্টমেন্টও নেওয়া হয়েছে।

হৃদরোগ ছাড়াও বিএনপি মহাসচিবের ঘাড়ে ইন্টারনাল ক্যারোটিভ আর্টারিতে জটিলতা রয়েছে। এর চিকিসা বাংলাদেশে না থাকায় ২০১৫ সালে ১৪ জুলাই কারাবন্দি ফখরুলকে বিদেশে যেতে জামিন দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট।

এরপর কয়েক দফায় তিনি সিঙ্গাপুর, ব্যাংকক ও নিউ ইয়র্কে বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসা নেন। হৃদরোগের চিকিসার জন্য সর্বশেষ ২০১৮ সালের ৩ জুন ব্যাংকক গিয়েছিলেন মির্জা ফখরুল। এর আগে ২০১৬ সালের ২৮ এপ্রিল তিনি ব্যাংকক যান।

জানা গেছে, এবার চিকিৎসা শেষে আগামী ২০ মে মির্জা ফখরুলের দেশে ফেরার কথা রয়েছে। তবে বিএনপির একটি সূত্র জানায়, ব্যাংককে চিকিৎসা শেষে লন্ডন যেতে পারেন মির্জা ফখরুল। সেখানে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সঙ্গে তার বৈঠক করার কথা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email