বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
অর্থনীতিডেস্ক

অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় আজ ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮ বৃহস্পতিবার ওপেকের দুই দিনব্যাপী শীর্ষ সম্মেলন শুরু হচ্ছে। এবারের সম্মেলনে দৈনিক তেল উত্তোলন কমানোর সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বিশ্বের বৃহৎ তেল উৎপাদনকারী দেশগুলোর জোট ওপেক। গতকাল ০৫ ডিসেম্বর বুধবার এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ওমানের তেল ও গ্যাস মন্ত্রী মোহাম্মদ বিন হামাদ। তবে তেল উৎপাদন কতটুকু কমানো হবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট তো তথ্য জানাননি তিনি।

এ বিষয়ে ওপেক সম্মেলনে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। গতকাল বুধবার দিনভর সদস্য রাষ্ট্রগুলো নিজেদের মধ্যে একাধিক বৈঠক করে এ তথ্য জানায়। তবে ওইসব বৈঠকের ফলাফলের বিষয়ে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি অংশগ্রহণকারী দেশগুলোর প্রতিনিধিরা। যদিও ধারণা করা হচ্ছে ওপেক থেকে কাতারের বেরিয়ে যাওয়া নিয়ে কথা হয়েছে। আজ বৈঠকের পরই এসব বিষয়ে সিদ্ধান্ত আসবে।

বাঙালিনিউজ
সৌদি তেলমন্ত্রী খালিদ আল-ফালাহ

ভিয়েনায় ওপেকের দু’দিনব্যাপী বৈঠকের আগে সৌদি তেলমন্ত্রী খালিদ আল-ফালাহ আগামী মাসে তেলের উৎপাদন ব্যাপকভাবে কমানোর আভাস দিয়েছিলেন। কিন্তু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তেলের উচ্চমাত্রার উৎপাদন ধরে রাখার আহ্বান জানান।

ধারণা করা হচ্ছে, ওপেকের ভিয়েনা বৈঠক থেকে যাতে তেলের উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নেয়া না হয় সেজন্য ব্রায়ান হুককে ভিয়েনায় পাঠিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ওপেকভুক্ত দেশগুলোর প্রতিনিধিরা ভিয়েনায় নিজেদের মধ্যে আলোচনার পাশাপাশি বিশ্বের অন্যতম বড় তেল উত্তোলনকারী দেশ রাশিয়ার সঙ্গে মতবিনিময় করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বাঙালিনিউজ
ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানে

এদিকে তেল রপ্তানিকারক দেশগুলোর সংস্থা-ওপেকের সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে ইরান বিষয়ক বিশেষ মার্কিন প্রতিনিধি ব্রায়ান হুকের বৈঠককে ‘অপেশাদার ও হস্তক্ষেপমূলক’ বলে এর তীব্র নিন্দা জানিয়েছে ইরান। তেহরান বলেছে, ওপেক একটি স্বাধীন সংস্থা এবং এটি বাইরের কারো নির্দেশ গ্রহণ করে না।

ওপেকের ১৭৫তম বৈঠকের একদিন আগে গতকাল বুধবার ব্রায়ান হুক অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনায় সৌদি তেলমন্ত্রী খালিদ আল-ফালাহ’র সঙ্গে বৈঠক করেন।

বাঙালিনিউজ
ইরান বিষয়ক বিশেষ মার্কিন প্রতিনিধি ব্রায়ান হুক

ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানে ওই বৈঠকের প্রতিক্রিয়ায় বলেন, “মি. হুক যদি আমেরিকাকে ওপেকের সদস্য করার অনুরোধ নিয়ে ভিয়েনায় এসে থাকেন তাহলে তার অনুরোধ বিবেচনা করা হবে।” কিন্তু তার যদি অন্য কোনো উদ্দেশ্য থেকে থাকে তাহলে তা হবে ‘অপেশাদার, শিশুসুলভ ও হস্তক্ষেপমূলক’ আচরণ।

জাঙ্গানে বলেন, “ওপেক একটি স্বাধীন সংস্থা। এটি আমেরিকার জ্বালানি বিভাগের কোনো অংশ নয় যে তা ওয়াশিংটনের কাছ থেকে নির্দেশ গ্রহণ করবে।”

বাঙালিনিউজ
কাতারের জ্বালানিমন্ত্রী সা’দ আল-কা’বি

এদিকে গতকাল কাতারের জ্বালানিমন্ত্রী সা’দ আল-কা’বি বলেছেন, তারা রাজনৈতিক কারণে ওপেক থেকে বেরিয়ে যাচ্ছেন না। ওপেকের ১৭৫তম বৈঠকে যোগ দিতে অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনা পৌঁছে গতকাল ০৫ ডিসেম্বর বুধবার রাতে এ মন্তব্য করেছেন কাতারের জ্বালানীমন্ত্রী।

কাতারের জ্বালানিমন্ত্রী কা’বি দাবি করেন, ওপেকে নিজের উপস্থিতির উপকারি ও ক্ষতিকর দিকগুলো বিবেচনা করে কাতার এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে যে, এটি একটি গ্যাসসমৃদ্ধ দেশ এবং গ্যাস রপ্তানিতে মনযোগ কেন্দ্রীভূত করাই দোহার জন্য বেশি লাভজনক।

গত ৩ ডিসেম্বর সোমবার কাতার ওপেক থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করে। আগামী মাস থেকে এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে বলে দোহা জানিয়েছিল।

কাতারের জ্বালানীমন্ত্রী এই দাবি করলেও ভিয়েনায় উপস্থিত ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান জাঙ্গানে বলেছেন, কাতার কেনো ওপেক থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল তা খতিয়ে দেখতে হবে।

Print Friendly, PDF & Email