বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
জাতীয়ডেস্ক

রাজধানীর ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজে ফের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ পদে ফিরছেন হাসিনা বেগম। নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহননের ঘটনায় বরখাস্ত হয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেই হাসিনা বেগমকেই ফের একই পদে বহাল করলো স্কুলটির গভর্নিং বডি।

গতকাল ১০ জানুয়ারি ২০১৯ বৃহস্পতিবার বৈঠক করে হাসিনা বেগমকে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের দায়িত্ব ফিরিয়ে দিয়েছে স্কুলটির গভর্নিং বডি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে সারাদেশে অধ্যক্ষ নিয়োগ বন্ধ থাকায়, অব্যাহতি পাওয়া ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হাসিনা বেগম তাঁর আগের পদ ফিরে পেলেন।

তবে স্কুলটি গভর্নিং বডি শিক্ষার স্বার্থে স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগে সহায়তা চেয়ে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, অধিদফতর ও শিক্ষা বোর্ডকে চিঠি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

গভর্নিং বডির সভাপতি গোলাম আশরাফ তালুকদার মিডিয়াকে জানান, দীর্ঘদিন স্থায়ী কোনো অধ্যক্ষ ছাড়া ভারপ্রাপ্তদের দিয়ে চলছে প্রতিষ্ঠানটি। তাই একজন স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগ দিতে চায় গভর্নিং বডি। কিন্তু শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের আদেশে অধ্যক্ষ নিয়োগে নিষেধাজ্ঞা আছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় গত বছরের আগস্টে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষ নিয়োগে এই নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল।

উল্লেখ্য, অধ্যক্ষ নিয়োগের জন্য গত ৯ ডিসেম্বর নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে ভিকারুননিসা। এই পদে নিয়োগ প্রত্যাশী ১৬ জন প্রার্থীর আবেদন জমা পড়েছিল। তার মধ্যে ভিকারুননিসায় কর্মরত ছয়জন ও বাইরে থেকে ১০ প্রার্থী আবেদন করেন।

গোলাম আশরাফ তালুকদার জানান, যেহেতু ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হাসিনা বেগমও অধ্যক্ষ পদের জন্য একজন প্রার্থী ছিলেন। তাই নিয়োগের স্বচ্ছতার জন্য আমরা তাকে অব্যাহতি দিয়ে আরেকজনকে দায়িত্ব দিয়েছিলাম। আমরা ওই সভাতেই সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম, যদি শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্থায়ী অধ্যক্ষ নিয়োগ অনুমোদন না করে, তাহলে হাসিনা বেগমকেই স্বপদে ফিরিয়ে আনা হবে।

গত সপ্তাহে অধ্যক্ষ নিয়োগের প্রক্রিয়াকে অবৈধ বলে চিঠি দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদফতর (মাউশি)। শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা বোর্ড বলে দেয়, সরকারি আদেশ অনুসারে এখন অধ্যক্ষ, উপাধ্যক্ষ নিয়োগ বন্ধ। সুতরাং হাসিনা বেগমকেই ফের একই পদে বহাল করলো স্কুলটির গভর্নিং বডি। সূত্র: বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম

Print Friendly, PDF & Email