ভারতে স্বামী গোসল না করার অভিযোগে ডিভোর্স চাইলেন স্ত্রী

বাঙালিনিউজ
আন্তর্জাতিক ডেস্ক

বেশ কয়েক বছর ধরে বিবাহবিচ্ছেদের ঘটনা বহুগুণ বেড়েছে। ছোট-বড় সব কারণেই বিচ্ছেদের ঘটনা ঘটছে। বিশ্বজুড়েই বর্তমানে এমন পরিস্থিতি। তবে এবার গোসল করেন না এমন অভিযোগে স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটানোর খবর জানা গেছে। এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের মধ্যপ্রদেশের ভুপালে।

এ ঘটনায় স্বামী থেকে ডিভোর্স চাওয়ার কারণ হিসেবে ওই নারী আদালতে অভিযোগ করেন, তার স্বামী সপ্তাহে একদিন গোসল করেন। এছাড়া ভালো করে দাড়ি কামায় না। দুর্গন্ধে বাড়িতে জীবনযাপন মুশকিল হয়ে পড়েছে।

তবে স্ত্রীর এমন অভিযোগ শুনে বিচারক যতবারই তাকে সিদ্ধান্ত দিতে সময় নিতে বলেছেন, ততবারই ওই নারী একই কথা উচ্চারণ করেছেন আদালতে- স্বামীর সঙ্গে সংসার করা মোটেই সম্ভব নয়; ডিভোর্স চাই।

এ বিষয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, তাদের বিয়ে হয়েছিল ২০১৮ সালে। পারিবারিকভাবেই সিন্ধি সম্প্রদায়ের ওই তরুণের (২৫) সঙ্গে ব্রাহ্মণ সম্প্রদায়ের তরুণীর (২২) বিয়ে হয়। প্রথম দিকে বেশ ভালোই চলছিল সংসার। কিন্তু এর পরই প্রকাশ পেতে থাকে স্বামীর অপরিচ্ছন্ন স্বভাবের বিষয়টি। গত ছয় মাস ধরে স্বামীকে অনেক বোঝানোর পরও তিনি স্ত্রীর কথা শুনতে রাজি হয়নি।

অবশেষে বিচ্ছেদের আর্জি জানিয়ে ফ্যামিলি কোর্টে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা ঠুকে দেন স্ত্রী।

জানা গেছে, এ কারণে এখনই বিচ্ছেদ নয়, আপাতত দুজনকে ছয় মাসের আলাদা থাকার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারক আরএন চাঁদ। এ সময়ের মধ্যে কাউন্সেলিং চলবে তাদের।

কোর্ট কাউন্সিলর সাহিল অবস্তী জানিয়েছেন, ঘটনাটি আদালতে গড়ানোয় অনেকটাই অনুতপ্ত অভিযুক্ত স্বামী। এখন থেকে স্ত্রীর কথামতো চলবেন বলে আগ্রহ প্রকাশ করলেও স্ত্রী তার সিদ্ধান্তে অনড় রয়েছেন।

এ ঘটনার আগেও ২০১৬ সালে ভারতের উত্তরপ্রদেশের মেরুটে স্বামী দাড়ি কামায় না বলে আত্মহত্যা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল স্ত্রী।

Print Friendly, PDF & Email