বাঙালিনিউজ
ভারতের ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে বাজিমাত উরি-অন্ধাধুনের

বাঙালিনিউজ
বিনোদনডেস্ক

আজ ০৯ আগস্ট ২০১৯ শুক্রবার ভারতের ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। এই পুরস্কার জয়ের লড়াইয়ে বাজিমাত করেছে কাশ্মীর নিয়ে দেশাত্মবোধক ছবি ‘উরি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’। মোট চারটি বিভাগে সেরার শিরোপা জয় করেছে দেশাত্মবোধক এই ছবি।

‘উরি’ ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতা নির্বাচিত হয়েছেন ভিকি কৌশল এবং সেরা পরিচালকের পুরস্কার জিতেছেন আদিত্য ধর। পরিচালক হিসেবে এটাই প্রথম ছবি কাশ্মীরের ছেলে আদিত্যর। সেরা আবহসঙ্গীত এবং সেরা সাউন্ড ডিজাইন বিভাগেও সেরার স্বীকৃতি পেয়েছে ‘উরি’।

অন্যদিকে, ভিকির সঙ্গে সেরা অভিনেতা নির্বাচিত হয়েছেন আয়ুষ্মান খুরানাও। ‘অন্ধাধুন’ ছবিতে অসাধারণ অভিনয়ের জন্য তিনি এই পুরস্কার জিতেছেন। তেলুগু ছবি ‘মহানটী’-তে অভিনয়ের জন্য সেরা অভিনেত্রী হয়েছেন কীর্তি সুরেশ।

মোট চারটি বিভাগে সেরার শিরোপা পেয়েছে ‘উরি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ ছবিটি

অন্যান্য বছরের মতো জয়জয়কার না হলেও, এবারও জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে পশ্চিমবঙ্গের বাংলা ছবি। ‘উরি’-তে সাউন্ড ডিজাইনার হিসেবে বিশ্বদীপ চট্টোপাধ্যায় আছেন এই জাতীয় পুরস্কার জয়ীর তালিকায়। এছাড়া ‘পদ্মাবত’ ছবির ‘বিনতে দিল’ গানের জন্য সেরা প্লে ব্যাক সিঙ্গার নির্বাচিত হয়েছেন অরিজিৎ সিংহ।

তবে সরাসরি পশ্চিমবঙ্গে পুরস্কার যা এল, তার মধ্যে অন্যতম নবাগত সাগ্নিক চট্টোপাধ্যায়ের স্বীকৃতি। ফেলুদাকে নিয়ে তাঁর ছবি ‘ফিফটি ইয়ার্স অব রে’জ ডিটেক্টটিভ’ পুরস্কার জিতেছে বেস্ট ডেবিউ নন ফিচার ফিল্ম বিভাগে। ইতিমধ্যেই দর্শক ও সমালোচক মহলে যথেষ্ট প্রশংসিত হয়েছে এই জার্নি ফিল্ম। বাংলা ভাষায় এই প্রথম সাহিত্যের কোনও চরিত্রকে নিয়ে তৈরি হয়েছে তথ্যচিত্র। সংলাপে শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছে চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়ের ‘তারিখ’। ছবির সংলাপ তাঁরই লেখা।

আর এবার সেরা বাংলা ছবি নির্বাচিত হয়েছে সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের ‘এক যে ছিল রাজা’।
‘বিসর্জন’এর পর ‘এক যে ছিল রাজা’। আবারও ভারতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছে দুই বাংলার জনপ্রিয় অভিনেত্রী জয়া আহসানের ছবি। সেরা আঞ্চলিক ছবি হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়েছে জয়া আহসান অভিনীত ও সৃজিত মুখার্জীর বহুল প্রশংসিত ছবি ‘এক যে ছিল রাজা’।

‘এক যে ছিল রাজা’ ছবিতে জয়া আহসান।

এর আগে ২০১৭ সালে সেরা আঞ্চলিক ভাষার সিনেমা হিসেবে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করে জয়া অভিনীত কৌশিক গাঙ্গুলির আলোচিত ছবি ‘বিসর্জন’। এবার ‘এক যে ছিল রাজা’ ছবিটি পুরস্কার পাওয়ার ঘোষণায় উচ্ছ্বসিত জয়া আহসান। তিনি মিডিয়াকে বলেন, ‘দুটো কারণে এটি আমার কাছে এক বিরাট আনন্দের, ২০১৭ সালে এ পুরস্কার পেয়েছিল কৌশিক গাঙ্গুলি পরিচালিত “বিসর্জন”। আমি সে ছবির অন্যতম মুখ্য চরিত্রে ছিলাম। এ বছরের পুরস্কৃত ছবি “এক যে ছিল রাজা”তেও আমি অভিনয় করেছি।

দ্বিতীয় আনন্দের বিষয় হলো, এ ছবির প্রেক্ষাপট বাংলাদেশের ভাওয়াল অঞ্চল। গবেষক দলের অংশ হিসেবে ছবিটিতে ভাওয়ালের স্থানীয় বাংলা উচ্চারণের ভঙ্গিমা নিয়ে আসার কাজটিতে আমি যুক্ত ছিলাম। কাকতালীয়ভাবে দুটো ছবির প্রেক্ষাপটই যে বাংলাদেশ, এটি আমার আনন্দের মাত্রা পূর্ণতর করেছে। “এক যে ছিল রাজা” ছবির প্রযোজনা সংস্থা এসভিএফ এবং ছবির পুরো টিমকে আন্তরিক অভিনন্দন।’

ঐতিহাসিক ভাওয়াল সন্ন্যাসী মামলা থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে ‘এক যে ছিল রাজা’ নির্মাণ করেছেন নির্মাতা সৃজিত মুখার্জী। গেল বছরের দুর্গাপূজায় ছবিটি মুক্তি পেয়েছে ভারতে। এসভিএফ ফিল্মসের ব্যানারে তৈরি হওয়া এই ছবির মূল চরিত্র রাজকুমার রমেন্দ্রনারায়ণ রায়ের ভূমিকায় আছেন যীশু সেনগুপ্ত।

জনপ্রিয় বিনোদনমূলক ছবি বিভাগে সেরার পুরস্কার পেয়েছে ‘বাধাই হো’

ভাওয়াল রাজার বোনের চরিত্রে আছেন জয়া। ভাওয়ালের জমিদারের বর্ণাঢ্য জীবনের সমাপ্তি হয় মাত্র ২৫ বছর বয়সে এক বিশেষ অসুখে। সে সময় তাঁর সৎকারও করা হয়। কিন্তু ১২ বছর পর তিনি আবারও ফিরে এলে শুরু হয় সম্পত্তি নিয়ে লড়াই আর সেই মামলা চলে ১৬ বছর ধরে।

বিনোদনমূলক পারিবারিক ছবি বিভাগে সেরার পুরস্কার পেয়েছে ‘বধাই হো’। এই ছবিরও নায়ক আয়ুষ্মান খুরানা। ছবিতে তাঁর ঠাকুমার ভূমিকায় অভিনয় করে সেরা সহঅভিনেত্রী হয়েছেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী সুরেখা সিক্রি। মরাঠি ছবি ‘চুম্বক’-এ অভিনয় করে সেরা পার্শ্ব চরিত্রাভিনেতার পুরস্কার পাচ্ছেন সদানন্দ কিরকিরে। সামাজিক বার্তামূলক ছবির পুরস্কার গিয়েছে অক্ষয়কুমারের ‘প্যাডম্যান’-এর ঝুলিতে। কন্নড় ছবি ‘নথিচরামি’-তে গানের জন্য সেরা গায়িকা মনোনীত হয়েছেন বিন্দু মণি।

সেরা ছবি-সহায়ক রাজ্য হিসেবে বিবেচিত হয়েছে উত্তরাখণ্ড। শ্রেষ্ঠ চলচ্চিত্র সমালোচক বিভাগে পুরস্কৃত হতে চলেছেন মালয়লম ভাষায় বি জনি এবং হিন্দি ভাষায় অনন্ত বিজয়।

সেরা সংলাপ বিভাগে পুরস্কৃত হতে চলেছে ‘তারিখ’।

শুক্রবার দুপুরে ৬৬তম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের ঘোষণা শুরু হয় দিল্লির শাস্ত্রী ভবনে। জুরি সদস্যরা তাদের রিপোর্ট জমা দিয়েছেন তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী প্রকাশ জাভেদকরের কাছে। বিভিন্ন বিভাগের শ্রেষ্ঠ ছবি পুরস্কার ঘোষণা করেছেন ডিরেক্টর রাহুল রাওয়ালিসহ জুরি সদস্যরা।

প্রত্যেক বছর এপ্রিলে ঘোষণা হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার এবং ৩ মে পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান।
কিন্তু এ বছর লোকসভা নির্বাচনের কারণে দেরি করে ঘোষিত হল পুরস্কার প্রাপকদের নাম। ১৯৫৪ সালে ভারতে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারের সূচনা হয়। ভারতের বিভিন্ন ইন্ডাস্ট্রির কাছে অত্যন্ত সম্মানের বলে বিবেচিত এই পুরস্কার। সূত্র: অনলাইন নিউজ।

Print Friendly, PDF & Email