বাঙালিনিউজ
বিশ্বকাপ মিশনে যুক্ত হলেন মোসাদ্দেক

বাঙালিনিউজ
স্পোর্টস ডেস্ক

বিশ্বকাপের আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ খেলবে টাইগাররা। ১৭ জনের দলে সে সফরের নাম রয়েছে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের। তবে বিশ্বকাপের টিকিট তিনি পাচ্ছেন কিনা সে বিষয়ে ছিল সংশয়। আসন্ন বিশ্বকাপকে সামনে রেখে দল ঘোষণা হয়নি এখনও।

সেখানে বারবারই শোনা যাচ্ছিল মোসাদ্দেকের নাম। এ ছাড়া এনামুল হক বিজয়, ফরহাদ রেজা ও জহুরুল ইসলাম অমিও ছিলেন সে তালিকায়। তবে সবাইকে রেখে বিশ্বকাপ মিশনে যুক্ত হলেন মোসাদ্দেক।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু এমন তথ্যই দিলেন।

এর আগে গত ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে বিশ্বকাপের দল নিয়ে ধারণা দিয়েছিলেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

বিসিবি সভাপতি জানিয়েছিলেন, বাইরে থেকে হঠাৎ করে কেউ এসে যে বিশ্বকাপ খেলবে সেই সুযোগ আমি দেখছি না। এর পর গত ৬ এপ্রিল তিনি বলেছিলেন, ১৫ নম্বরে কে খেলবেন সেটি ঠিক করতেই দল ঘোষণায় দেরি হচ্ছে।

তবে এই স্থানে একজন নির্ভরযোগ্য মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যাটকে চান তিনি।

সেদিন হোটেল সোনারগাঁওয়ে বিএসপিএর স্পোর্টস অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন, ‘ওপেনিংয়ের জন্য তামিম, সৌম্য, লিটন আছে। আমাদের মিডল অর্ডারের দিকে একটু গ্যাপ আছে। উদাহরণ স্বরূপ- যদি মিঠুন কোনো কারণে খেলতে না পারে তবে ওর জায়গায় আসবে কে! অথবা সাব্বিরের জায়গায় কে আসবে?’

বিসিবি সভাপতির এমন বক্তব্যের পর থেকেই ঘুরেফিরে শোনা যাচ্ছিল মোসাদ্দেকের নাম।

তা ছাড়া ডিপিএলে দারুণ পারফরম করছেন মোসাদ্দেক। ধারাবাহিকভাবে প্রায় প্রতি ম্যাচেই পারফরম করছেন তিনি। ব্যাট-বলে আর অধিনায়কত্বে চোখে পড়ার মতো পারফরম্যান্স তার। বুধবার শেখ জামালের বিপক্ষে সেঞ্চুরি করেছেন মোসাদ্দেক। আর এমন ফর্মে থাকা টাইগারের দলে অন্তর্ভুক্তি হতেই পারে।

তেমনটিই ইঙ্গিত দিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

তিনি জানালেন, বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনীকে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে এমন পারফরম্যান্স করার পর বিশ্বকাপের দলে মোসাদ্দেকের জায়গা নিশ্চিত হয়ে গেছে।

এখনও পর্যন্ত তার ব্যাপারে সবাই ইতিবাচক জানিয়ে নান্নু বলেন, বিশ্বকাপে ছয়-সাত নম্বর পজিশনের জন্য যেমন পারফরমার খুঁজছিলেন নির্বাচকরা, ডিপিএলে তেমনটাই দেখিয়েছেন মোসাদ্দেক। সবুজ সংকেত জ্বলছে তার ভাগ্যে। তবে বিশ্বকাপ দল ঘোষণার আগে আলোচনা করেই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

Print Friendly, PDF & Email