বাঙালিনিউজ
বলিউড ও হলিউড অভিনেত্রী এবং জাতিসংঘের শান্তি শুভেচ্ছা দূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া।

বাঙালিনিউজ
বিনোদনডেস্ক

চলতি বছর ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারিতে পাকিস্তানের বালাকোর্টে ভারতের এয়ারস্ট্রাইককে সমর্থন করে টুইট করেছিলেন বলিউড ও হলিউড অভিনেত্রী এবং জাতিসংঘের শান্তি শুভেচ্ছা দূত প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। একইসঙ্গে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছিলেন ‘জয় হিন্দ’। প্রিয়াঙ্কার সেই টুইট নিয়ে তাঁকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের একটি অনুষ্ঠানে চড়া সুরে প্রশ্ন তোলেন এক পাকিস্তানি মহিলা।

কিন্তু ওই পাকিস্তানি মহিলার আক্রমণের ঠাণ্ডা মাথায় জবাব দিয়েছেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। পাক মহিলার প্রশ্নের জবাবে প্রিয়াঙ্কা বলেছেন, তিনি যুদ্ধ সমর্থন করেন না। তবে এই সবকিছুর উর্দ্ধে হলো তিনি একজন দেশপ্রেমী। প্রিয়াঙ্কার মার্জিত ভঙ্গিমায় সাফ জবাব মন জয় করেছে নেটিজেনদের।

সম্প্রতি আয়োজিত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলসের ওই অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছিলেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া। সেখানে তাঁর চিন্তাধারা নিয়ে প্রশ্ন তুলে ওই পাকিস্তানী মহিলা জানতে চান, তিনি জাতিসংঘের শান্তির দূত। তা সত্ত্বেও পাকিস্তানে পরমাণু বোমা আক্রমণের মতো চিন্তাকে আপনি প্রশ্রয় দিচ্ছেন। এই যুদ্ধে কোনও হার-জিতের জায়গা নেই। আমার মতো লাখ লাখ পাকিস্তানি আপনাকে শুরু থেকে সমর্থন করত।”

তার জবাবে ‘দেশি গার্ল’ বলেন, ”পাকিস্তানেও আমার অনেক ভক্ত রয়েছে ঠিকই, তবে আমি ভারতীয়। আমি যুদ্ধকে সমর্থন করি না ঠিকই, তবে এটাও ঠিক যে আমি দেশপ্রেমী। তাই পাকিস্তানে যারা আমায় ভালোবাসেন, তারদর ভাবাবেগে যদি আঘাত করে থাকি, তাহলে দুঃখিত।”

এর পর নিজের অবস্থানের পেছনে যুক্তিও ব্যাখ্যা করেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি বলেন, “আমরা প্রত্যেকেই একটি মধ্যস্থতার জায়গা থেকে বিচার করি। আপনিও নিশ্চয় তাই করেন।” হাসিমুখেই পাকিস্তানি মহিলাকে শান্ত থাকতেও অনুরোধ করেন তিনি। তাকে উচ্চ স্বরে কথা বলতে নিষেধ করেন প্রিয়াঙ্কা। তিনি মনে করিয়ে দেন, “আমরা সবাই এখানে ভালবাসার উদ্দেশে এসেছি।”

এদিকে ক্যামেরার সামনেই প্রিয়াঙ্কাকে সমালোচনামূলক প্রশ্নে বিদ্ধ করায় অস্বস্তিতে পড়েন শোয়ের সঞ্চালক। অনুষ্ঠান হলের মধ্যেও ওঠে গুঞ্জন। তবে, একটুও বিচলিত হননি প্রিয়াঙ্কা। প্রথমেই তিনি পাকিস্তানি মহিলাকে তাঁর প্রশ্ন শেষ করতে অনুরোধ করেন। এর পর তিনি অত্যন্ত শান্তভাবে, মার্জিত ভঙ্গিতে নিজের মতামত ব্যক্ত করেন।

প্রিয়াঙ্কার সু্ন্দর উত্তর শুনে অনুষ্ঠান চলাকালীনই হাততালি দেন সবাই। প্রিয়াঙ্কার জবাব দেওয়ার ভঙ্গি, তাঁর চারিত্রিক দৃঢ়তা ও মার্জিত ব্যবহারের পরিচয় বলেই মনে করছেন নেটিজেনরা। সূত্র: জি নিউজ।

Print Friendly, PDF & Email