বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
জামালপুর প্রতিনিধি

গতকাল ০৭ আগস্ট ২০১৯ বুধবার রাত ৮টার দিকে, জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জে ভিজিএফ’র চাল নিয়ে ফেরার পথে যমুনায় নৌকাডুবিরর ঘটনা ঘটেছে। জানা গেছে, ওই নৌকায় ৩০ জন যাত্রী ছিলেন। যাত্রীদের মধ্যে আজ ০৮ আগস্ট বৃহষ্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ২৪ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। তবে এখনও নিখোঁজ রয়েছেন ৬ জন।

নিখোঁজ যাত্রীরা হলেন শহীদ সিকদার(৪৫), পিতা দিরবার সিকদার; কাঞ্চন মালা(৪৫), স্বামী: মো: ফজল হক, রেজিয়া(৪৫), স্বামী: মৃত মজিবর, নয়ন(৮); দুলাল(৩০), পিতা : তৈয়ব আলী; মোছা: আকন(৬৫), স্বামী: মো: সকমল। নিখোঁজ এবং উদ্ধার সকলের বাড়ি চর হলকা হাবড়াবাড়ী এলাকায়।

জানা গেছে, ফুটানী বাজার ঘাট থেকে চর হলকা হাবড়াবাড়ী এলাকায় যাওয়ার পথে টিনের চরের কাছে পৌঁছলে মাঝ নদীতে নৌকাটি ডুবে যায়। দেওয়ানগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এম মইনুল ইসলাম জানান, চুকাইবাড়ী ইউনিয়ন থেকে ভিজিএফ চাল নিয়ে যাওয়ার সময় মাঝ নদীতে প্রবল বাতাসে সৃষ্ট ঢেউয়ে নৌকাটি ডুবে যায়।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়দের সহায়তায় আজ ০৮ আগস্ট বৃহষ্পতিবার দুপুর পর্যন্ত ২৪ জনকে দেওয়ানগঞ্জ ও ইসলামপুরের বিভিন্ন চর এলাকা থেকে উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও মমতা আক্তার বিথি নামে এক শিশুকে ১২ ঘন্টা পানিতে ভেসে থাকার পর বগুড়ার সারিয়াকান্দি চন্দনবাইশার ঘুঘুমারি থেকে জীবিত উদ্ধার করে স্থানীয়রা। তার পিতার নাম মইন উদ্দিন। মমতাকে সারিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

জামালপুর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার নুর উদ্দিন অলি জানায়, বুধবার রাত ৮টায় নৌকাডুবির পর রাত ১ টা পর্যন্ত উদ্ধার অভিযান চালিয়ে ১৬ জনকে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়রা জীবিত উদ্ধার। এরপর বৈরি আবহাওয়ার কারণে উদ্ধার অভিযান বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

আজ বৃহষ্পতিবার সকাল থেকে পুনরায় উদ্ধার অভিযান শুরু করে ফায়ার সার্ভিস। দুপুর পর্যন্ত জামালপুরের দেওয়ানগঞ্জ ও ইসলামপুরের বিভিন্ন চর থেকে ৭ জন ও বগুড়ার সারিয়াকান্দি থেকে এক শিশুকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা। স্রোতের গতিবেগ বেশি থাকায় উদ্ধার অভিযান স্থগিত করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email