বাঙালিনিউজ

বাঙালিনিউজ
নিজস্ব প্রতিবেদক

আগামী ০৬ জুন ২০১৯ বৃহস্পতিবার সারা দেশে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপিত হবে। আজ ০৪ জুন মঙ্গলবার রাত পৌনে ৯টার দিকে, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বায়তুল মোকাররম সভাকক্ষে জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক শেষে এ সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়েছে। এ সময় বলা হয়, ১৪৪০ হিজরি সনের শাওয়াল মাসের চাঁদ দেশের কোথাও দেখা যায়নি। ফলে এবার রোজা হবে ৩০ দিন।

জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এ বৈঠক সভাপতিত্ব করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির সভাপতি শেখ মো. আবদুল্লাহ। সন্ধ্যা সোয়া ৭টায় জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটির এই বৈঠক শুরু হয়।

বাংলাদেশের ৬৪ জেলার কোথাও শাওয়ালের চাঁদ দেখা গেছে কি না, সে খবর নেয় কমিটি। প্রায় দেড় ঘণ্টা বৈঠকের পর রাত ৮টা ৫২ মিনিটে আজ মঙ্গলবার বাংলাদেশের কোথাও চাঁদ দেখতে না পাওয়ার খবর আসার কথা জানান তিনি।

ঘোষণা দিতে এত সময় নেওয়ার কারণ ব্যাখ্যা করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, “সারা দেশের আলেম-ওলামাদের সাথে কথা বলে উনাদের মতামত নিয়ে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। বিভিন্ন মাদরাসা ছাত্ররাও চাঁদ দেখার চেষ্টা করেছে। উনাদের মতামত নিয়ে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। তাই বিলম্ব হয়েছে।

এক মাস রোজার পর বছরের সবচেয়ে বড় ধর্মীয় অনুষ্ঠান ঈদুল ফিতর উদযাপন করেন ইসলাম ধর্মাবলম্বীরা। শাওয়ালের চাঁদ সোমবার দেখা যাওয়ায় আজ মঙ্গলবারই ঈদুল ফিতর উদযাপন করেছেন সৌদি আরবসহ মধ্যপ্রাচ্যের মুসলমানরা।

সাধারণত সৌদি আরবের একদিন পর বাংলাদেশে চাঁদ দেখা যায়। এ বছর বাংলাদেশে রমজানও শুরু হয়েছিল সৌদি আরবের একদিন পর। তবে মঙ্গলবার বাংলাদেশে চাঁদ দেখা না যাওয়ায় এবার ৩০ রোজাই পূর্ণ করতে পারছেন এদেশের মুসলমানরা।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী শেখ আব্দুল্লাহর সভাপতিত্বে চাঁদ দেখা কমিটির সভায় উপস্থিত ছিলেন ধর্ম সচিব, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের খতিবসহ কমিটির সদস্যরা।

প্রধান ঈদ জামাত সকাল সাড়ে ৮টায়
রাজধানীসহ দেশের সর্বত্রই ঈদের নামাজের প্রস্তুতি প্রায় সম্পন্ন হয়েছে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন জানিয়েছে, পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে জাতীয় ঈদগাহ ময়দানে দেশের প্রধান ঈদ জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল সাড়ে ৮টায়। জাতীয় ঈদগাহে মুসল্লিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কঠোর নিরাপত্তাব্যবস্থা নিয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদে সকাল ৭টা থেকে পর্যায়ক্রমে ৫টি ঈদের জামাত হবে।

বাসস জানায়, রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সোমবার এক বাণীতে পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে দেশবাসীসহ বিশ্ববাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও মোবারকবাদ জানিয়েছেন। রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘ঈদ সবার মধ্যে গড়ে তোলে সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি ও ঐক্যের বন্ধন। ঈদুল ফিতরের শিক্ষা সবার মধ্যে ছড়িয়ে পড়ুক, গড়ে উঠুক সমৃদ্ধ বাংলাদেশ—এ প্রত্যাশা করি।’

পৃথক বাণীতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশবাসী ও বিশ্বের সব মুসলমানকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ব্যক্তি, পরিবার, সমাজ ও রাষ্ট্রীয় জীবনে আত্মশুদ্ধি, সংযম, সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির মেলবন্ধন পরিব্যাপ্তি লাভ করুক—এটাই হোক ঈদ উৎসবের ঐকান্তিক কামনা। হাসি-খুশি ও ঈদের অনাবিল আনন্দে প্রতিটি মানুষের জীবন পূর্ণতায় ভরে উঠুক।

Print Friendly, PDF & Email