বাঙালিনিউজ
বিনোদন ডেস্ক

কপিরাইট আইনে এক লাখ টাকা জরিমানা গুণতে হচ্ছে বাংলাদেশের একটি উল্লেখযোগ্য রেকর্ড লেবেল জি-সিরিজ। প্রতিষ্ঠানটিকে জরিমানা করেছে বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস।

জি-সিরিজ প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে অভিযোগ, ২০১৭ সালে মূল প্রযোজকের কোনো অনুমতি না নিয়ে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের চলচ্চিত্র ‘নিঝুম অরণ্যে’ নিজেদের ইউটিউব চ্যানেলে ছেড়েছে জি-সিরিজের কর্তৃপক্ষ।

জানা গেছে, এ বিষয়ে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইমপ্রেস টেলিফিল্ম লিমিটেডের পক্ষে ব্যারিস্টার ওলোরা আফরিন বাংলাদেশ কপিরাইট অফিসে কপিরাইট লঙ্ঘনসংক্রান্ত একটি অভিযোগ দাখিল করেন।

সেই অভিযোগে বলা হয়, চুক্তির শর্ত লঙ্ঘন করে ২০১৭ সালের ৯ আগস্ট ইমপ্রেস টেলিফিল্মের চলচ্চিত্রের ‘নিঝুম অরণ্যে’ নামের পুরো চলচ্চিত্রটি জি-সিরিজ তাদের ইউটিউব চ্যানেলে ছাড়ে। এ ব্যাপারে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের কাছ থেকে প্রতিষ্ঠানটি কোনো অনুমতি নেয়নি।

তবে প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় প্রতিষ্ঠানটিকে এক লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ কপিরাইট অফিস। বিষয়টি গত ১২ জুন ২১৯ বুধবার নিশ্চিত করেছেন কপিরাইট অফিসের রেজিস্ট্রার জাফর রাজা চৌধুরী।

এর আগে এমন অর্থদণ্ড দেয়ার ঘটনা ঘটেনি জানিয়ে জাফর রাজা জানান, জি-সিরিজের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় এই প্রথম এক লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেয়া হয়েছে তাদের। এমন অর্থদণ্ড কপিরাইট অফিসের ইতিহাসে একটি উল্লেখযোগ্য ঘটনা।

রেজিস্ট্রার অব কপিরাইট জাফর রাজা চৌধুরী জানান, গত ১৮ মার্চ উভয় পক্ষের আইনজীবীর উপস্থিতিতে ওই অভিযোগের বিষয়ে শেষ শুনানি গ্রহণ করা হয়। বিবাদী ইউটিউব চ্যানেলে চলচ্চিত্রটি প্রদর্শন করে প্রচুর আর্থিক মুনাফা অর্জন করছেন, যা কপিরাইট আইনের লঙ্ঘন এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

ইউটিউব চ্যানেল থেকে ‘নিঝুম অরণ্যে’ ছবিটি সরিয়ে নেয়া হয়েছে জানিয়ে গতকাল ১৪ জুন শুক্রবার সন্ধ্যায় জি-সিরিজের স্বত্বাধিকারী নাজমুল হক ভূঁইয়া বলেন, ‘আমরা এখনও আদেশের কপি হাতে পাইনি। পাওয়ার পর আইনজীবীর মাধ্যমে কপিরাইট বোর্ডের কাছে আপিল করব। সেখানে সমাধান না পেলে হাইকোর্টে যাব।’

প্রসঙ্গত ২০১০ সালে পয়লা বৈশাখে ইমপ্রেস টেলিফিল্মের ব্যানারে মুক্তি পায় মুক্তিযুদ্ধ সময়ের গল্প নিয়ে নির্মাণ ছবি ‘নিঝুম অরণ্যে’। ছবিটির নির্মাতা মুশফিকুর রহমান গুলজার। ছবির নাম ভূমিকায় ছিলেন সজল ও বাঁধন। ছবিতে আরও অভিনয় করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন, চম্পা, আবুল হায়াত প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email