বাঙালিনিউজ
তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক

যানজট এড়ানোর পাশাপাশি সময় বাঁচাতে তরুণদের কাছে জনপ্রিয় বাহন মোটরসাইকেল। মোটরসাইকেলচালকদের জন্য নতুন নেভিগেশন মোড বা পথনির্দেশনামূলক ফিচার নিয়ে এসেছে গুগল ম্যাপস।

মোটরসাইকেল রাইডারদেরও রয়েছে কিছু নির্দিষ্ট চাহিদা। গাড়ি যেসব পথ দিয়ে চলাচল করতে পারে না, গুগল ম্যাপসের নতুন ফিচারের মাধ্যমে সেসব সরু পথ দিয়ে গন্তব্যে পৌঁছাতে পারবেন মোটরসাইকেল রাইডাররা। এ ছাড়া এমন অনেক রাস্তা বা হাইওয়ে আছে যেগুলোতে দুই চাকাবিশিষ্ট যানবাহন চলাচল নিষেধ। কারণ সেসব রাস্তায় গাড়ি ও মোটরসাইকেলের গতির পার্থক্য অনেক।

আগে পায়ে হাঁটা ও গাড়ির মিলিত সম্ভাব্য সময় ধরে নিয়ে মোটরসাইকেল রাইডাররা গন্তব্যে পৌঁছানোর আনুমানিক সময় হিসাব করতেন।

কিন্তু এখন গুগল ম্যাপের নতুন মেশিন লার্নিং ফিচারের মাধ্যমে মোটরসাইকেল রাইডারদের যাত্রার সময় হবে আরও নির্ভুল, যা মোটরসাইকেলের গতির ওপর ভিত্তি করে রাইডারদের জানিয়ে দেবে।

অন্যদিকে টার্ন-বাই-টার্ন ডিরেকশন বা দিকনির্দেশনায় যুক্ত করা হয়েছে গুগল স্ট্রিট ভিউয়ের ছবি নির্ভর নেভিগেশন সিস্টেম।

এতে করে গুগল ম্যাপসের মাধ্যমে মোটরসাইকেল রাইডাররা পরবর্তী সময়ে গন্তব্যে রওনা দেয়ার আগে ট্রিপের পূর্বপরিকল্পনা করতে পারবেন অনায়াসে।

এ ছাড়া এই ফিচারের মাধ্যমে যাত্রী তার যাত্রা পথটির লাইভ পরিবার এবং বন্ধুদের সঙ্গে স্ক্রিন থেকেই সরাসরি শেয়ার করতে পারবেন। ফলে পরিবার ও বন্ধুরা লাইভ দেখতে পারবেন যে তার পরিচিত মানুষটি সঠিক পথ দিয়ে যাচ্ছে কিনা এবং কোনো অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা ঘটলে তারা যেন দ্রুত পদক্ষেপ নিতে পারেন।

প্রসঙ্গত ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাস থেকে পুরো বাংলাদেশের ৫০ সহস্রাধিক কিলোমিটার রাস্তা, ৮০ লাখের বেশি বিল্ডিং বা দালানকোঠা এবং ছয় লক্ষাধিক স্থান ম্যাপে যুক্ত করেছে গুগল।

Print Friendly, PDF & Email